ভোলার দৌলতখানে চার করাতকল (সমিল) মালিককে ৫০ হাজার টাকা এবং ডিলিং লাইসেন্স না থাকার অপরাধে অপর দুই ব্যবসায়ীকে ৬ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসময় মাস্ক না পরে ঘোরাঘুরি করায় দুই পথচারীকে এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। (২৪ নভেম্বর) মঙ্গলবার বিকালে চার ঘন্টাব্যাপী উপজেলার ঘুইংগারহাট, মিয়ারহাট বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের এ অর্থদণ্ড দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কাওছার হোসেন।

তিনি জানান, চার করাতকল (সমিল) মালিকের লাইসেন্স না থাকা ও সড়কে গাছের গুড়ি রাখার অপরাধে ৫০ হাজার এবং ডিলিং লাইসেন্স না থাকার অপরাধে অপর দুই ব্যবসায়ীকে ৬ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। এসময় মাস্ক বিহীন দুই পথচারী চলাফেরা করায় এক হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। সবমিলেয়ে ৫৭ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। অভিযানে দৌলতখান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুমন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।

জানা যায়, রতনের করাতকলের (সমিল) গাছের গুঁড়ি সড়কে রাখার অপরাধে ২০ হাজার, আব্দুল কাদেরকে ১০ হাজার এবং লাইসেন্স না থাকার অপরাধে শিবলু ও জামালকে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। অপরদিকে ডিলিং লাইসেন্স না থাকায় আব্দুল আজিজকে ১ হাজার ও আব্দুল্লাহকে ৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া হয়। এসময় লিটন ও বশার নামের দুই পথচারীকে মাস্ক না পরে ঘোরাঘুরী করার অপরাধে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

Leave a comment