ভোলায় চেয়ারম্যান বাবার গরীবের চাউল চুরির ঘটনাকে ঢাকতে ছেলের সাংবাদিককে মোবাইল চোর বানানোর ব্যর্থ মিশন,অতঃপর সাংবাদিকের উপর হামলা-এখনো কেন আসামি গ্রেপ্তার হয়নি প্রশ্ন ওসির কাছে….???

স্টাফ রিপোর্টার,

দৈনিক ভোলাটাইমস্ : : ভোলায় সাংবাদিক সাগর চৌধুরির উপর মধ্যযুগীয় বর্বরতা চালিয়েছে সন্ত্রাসী নাবিল। সাংবাদিকের উপর বর্বরোচিত হামলার ঘটনা ভিডিও ধারণ করে তা আবার ফেইজবুকে লাইভ ও করেছেন পেশাদার এ সন্ত্রাসী। ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি- জসিম হায়দারের ছেলে নাবিল, বাংলাদেশ অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি সাগর চৌধুরীকে আজ ৩১ মার্চ সকাল ৯ টায় উপজেলার রাজমনি সিনেমার সামনে আটক করে, অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করেছে। উক্ত ঘটনায়,ভোলার সাংবাদিক এবং অনলাইন এডিটরস কাউন্সিল ও বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স সোসাইটির পক্ষে আবুল কালাম আজাদ ও মাহমুদ হোসেন মোয়াজ্জেম উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। সেই সাথে হামলাকারী নাবিলকে অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছেন। গরিবের নামে বরাদ্দকৃত চাল রাতের আধারে চুরি করে নেয়ায় ওই চালের ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহি অফিসার কে সাংবাদিক জানালে এঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে ভোলার বোরহানউদ্দিনে সাংবাদিক সাগর চৌধুরীকে মোবাইল চোর ও ছিনতাইয়ের অপবাদ দিয়ে এভাবে মারধর করেছে বোরহানউদ্দিন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন হায়দারের ছেলে নাবিল। এমনটাই জানিয়েছেন নির্যাতিত সাংবাদিক সাগর চৌধুরী ও স্থানীয় সাংবাদিকরা। নির্যাতিত সাংবাদিক বোরহানউদ্দিন থানায় মামলা দায়ের করতে গেলে থানা পুলিশ সাংবাদিকদের মামলা নেয়নি। সভাপতি আর চেয়ারম্যানের প্রভাবে থানা পুলিশ দিশেহারা। ক্ষমতার অপ-ব্যবহার করে এভাবে জনসমক্ষে একজন মিডিয়া কর্মীকে পেটালো আর পাশে দাঁড়িয়ে মানুষগুলো প্রতিবাদের সাহস না পেয়ে সিনেমার দৃশ্যের মতো তাকিয়ে দেখলো! উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির ছেলে বলেই এভাবে দেশের ক্রান্তিকাল সময়ে একজন সাংবাদিককে পেটানোর সাহস পেয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয়রা। অপরাধীরা নাবিলের আশ্রয়দাতাসহ হামলাকারী নাবিলকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন ভোলা জেলার সকল সাংবাদিক বৃন্দ ।

দৈনিক ভোলাটাইমস পরিবারের পক্ষ থেকে এই হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি এবং আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে আসামি গ্রেপ্তার না হলে বোরহানউদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রত্যেক থানার প্রেসক্লাবের সম্মুখে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলের মতো কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে ।