কোরানের ২৬ টি আয়াত বাদ দেওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন। দাবি করেছিলেন, নাস্তিকদের উপর আক্রমণের ক্ষেত্রে আত্মপক্ষ সমর্থন হিসেবে সেই আয়াতগুলি ব্যবহার করে ইসলামিক জঙ্গি সংগঠনগুলি। সেই মামলায় শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সইদ ওয়াসিম রিজভিকে ৫০,০০০ টাকা জরিমানা ধার্য করল সুপ্রিম কোর্ট। আজ সোমবার বিচারপতি রোহিংটন এফ নরিম্যানের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ডিভিশন বেঞ্চ বলেছেন, ‘এটা একেবারে যুক্তিহীন আর্জি।’ যে বেঞ্চে ছিলেন বিচারপতি বিআর গাভাই এবং বিচারপতি হৃষিকেশ রায়। সেই পিটিশনও খারিজ করে দিয়েছে শীর্ষ আদালত।

রিজভির পিটিশনে অভিযোগ করা হয়েছিল, পবিত্র কোরানের ২৬ টি আয়াত বা সুরা দেশের আইনকে লঙ্ঘন করছে। চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদের মদত দিচ্ছে। যা দেশের সার্বভৌমত্ব, ঐক্য এবং অখণ্ডতার প্রতি বিপজ্জনক বলে পিটিশনে অভিযোগ করেছিলেন রিজভি। সেজন্য সেই আয়াতগুলিকে অসাংবিধানিক এবং অকার্যকরী হিসেবে ঘোষণা করার আর্জি জানিয়েছিলেন। পিটিশনের বিষয়বস্তু নিয়ে মতামতের জন্য একটি বিশেষজ্ঞ ধর্মীয় কমিটির গঠনের দাবি তুলেছিলেন রিজভি। শুধু তাই নয়, বিষয়টি নিয়ে শ্বেতপত্র প্রকাশ বা উপযুক্ত আইন প্রণয়নের মাধ্যমে নিজেদের নীতি স্পষ্ট করার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দেওয়ারও আর্জি জানিয়েছিলেন।

এমনিতেই চলতি মাসের গোড়ার দিকে জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশনের তোপের মুখে পড়েছিলেন রিজভি। নোটিশ জারি করে কড়া ভাষায় জানানো হয়েছিল, কোরান নিয়ে যে মন্তব্য করেছেন, তা প্রত্যাহার করে নিতে হবে। সেই নির্দেশ পূরণ না করলে শুনানি হবে। তার ভিত্তিতে রিজভির বিরুদ্ধে আইন পদক্ষেপ করার জন্য নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেবে কমিশন। সংখ্যালঘু কমিশনের মতে, দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। সেজন্যেই সেই মন্তব্য করেছিলেন রিজভি।
সুত্র: https://bangla.hindustantimes.com/

Leave a comment