রাজশাহী নগরীর কয়েরদাঁড়া এলাকায় নির্মাণাধীন একটি চারতলা ভবন ধসে পড়েছে। এতে তিনটি প্রাইভেটকার ও দুইটি ভ্যানগাড়ি চাপা পড়েছে বলে জানা গেছে। তবে ভবনটিতে কোনো মানুষ না থাকায় হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। রোববার বিকেল ৩টার দিকে কয়েরদাঁড়া ‘খ্রিস্টান পাড়া’য় এ ঘটনা ঘটে। রাজশাহীর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আবদুর রউফ জানান, ভবনটির দৈর্ঘ্য প্রায় ৮০ ফুট। প্রস্থ ছিল ৪০ ফুট। চারতলা পর্যন্ত নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছিল। উপরে আরেক তলা তোলার জন্য বিম ওঠানো হয়েছিল। তিনি আরও জানান, ভবনটিতে নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করা হচ্ছিল। সেজন্যই ধসে পড়েছে। তবে ভবনে কোনো মানুষ না থাকায় হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আবদুর রউফ জানান, ভবনের নকশায় অনুমোদন ছিল কি-না, কোন ধরনের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার হয়েছে, সেটি তদন্ত করে দেখা হবে।

ওই এলাকার ব্যবসায়ী আক্তারুজ্জামান বাবলু বাড়িটি নির্মাণ করছিলেন। বছরখানেক আগে তিনি মারা যান। এরপর থেকে ভবনটির নির্মাণ কাজ বন্ধ রয়েছে। তবে এরপর থেকে ভবনটির মালিকানায় ছিলেন বাবলুর ছোট ভাই নুরুজ্জামান পিটার। ভবন মালিকের ব্যবস্থাপক তোফাজ্জল হোসেন মডি দাবি করেন, ভালো মানের সামগ্রী দিয়েই ভবনটি নির্মাণ করা হয়েছিল। তিনি বলেন, ভবন আগেই নির্মাণ করা হয়েছিল। কিন্তু এতে কেউ থাকত না। রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (আরডিএ) কাছ থেকে নকশার অনুমোদন নেওয়া হয়েছিল কি-না, সে সম্পর্কে কিছু জানেন না বলে জানান তিনি।

সুত্র : সমকাল।

Leave a comment