প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে সংক্রমণ ও মৃত্যু আশঙ্কাজনকভাবে বাড়তে থাকায় সারাদেশে কমপক্ষে ১৪ দিনের শাটডাউনের সুপারিশ করেছে কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। কমিটির এই সুপারিশকে যৌক্তিক বলে মনে করছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ১৪ দিন সম্পূর্ণ শাটডাউনের সুপারিশের তথ্য জানিয়েছে কোভিড কারিগরি পরামর্শক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লাহ। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনার বিশেষ ডেল্টা প্রজাতির সামাজিক সংক্রমণ চিহ্নিত হয়েছে। ইতোমধ্যে দেশে এই প্রজাতিতে আক্রান্তের প্রকোপ অনেক বেড়েছে। এ প্রজাতির জীবাণুর সংক্রমণ ক্ষমতা তুলনামূলকভাবে অনেক বেশি। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য বিশ্লেষণে সারদেশেই উচ্চ সংক্রমণ, ৫০টিরও বেশি জেলায় অতি উচ্চ সংক্রমণ লক্ষ্য করা গেছে। এ রোগ প্রতিরোধের জন্য খণ্ড খণ্ড ভাবে নেয়া কর্মসূচির উপযোগীতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী গণমাধ্যমকে বলেন, করোনার সংক্রমণ যেহেতু বাড়ছে। এজন্য দেশের বিভিন্ন জায়গা এবং স্থানীয়ভাবেও কঠোর বিধিনিষেধ দেয়া হয়েছে। জাতীয় পরামর্শক কমিটি এখন যে সুপারিশ করেছে- সেটি যৌক্তিক। সরকারেরও ইতিমধ্যে এই ধরনের প্রস্তুতি আছে। কঠোর বিধি-নিষেধের চিন্তা-ভাবনা সরকারও করছে। যে কোনো সময় তা ঘোষণা দেয়া হবে।

করোনা সংক্রমণ রোধে বর্তমানে সারাদেশে বিধিনিষেধ চলছে। এই বিধিনিষেধ ১৫ জুলাই পর্যন্ত চলার কথা। এর বাইরে ঢাকার আশপাশের সাতটি জেলায় কঠোর বিধিনিষেধ দিয়ে রাজধানী ঢাকাকে বিচ্ছিন্ন করার চেষ্টা চলছে।

Leave a comment

Cancel reply