রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একদিনে আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় সাত ও উপসর্গে সাতজন মারা গেছেন।
সোমবার সকালে হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রোববার (২৫ জুন) সকাল ৮টা থেকে সোমবার (২৮ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটের বিভিন্ন ওয়ার্ডে ১৪ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে ১১ জন পুরুষ ও তিনজন নারী মারা গেছেন।  স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের দাফন সম্পন্ন করার জন্য নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে বলে তিনি জানান।
তিনি আরও বলেন, মৃতদের মধ্যে রাজশাহীর সাতজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের পাঁচজন ও নওগাঁর একজন ও নাটোরের একজন। এর মধ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন রাজশাহীর তিনজন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের চারজন। অন্যদিকে উপসর্গে মারা গেছেন রাজশাহীর চারজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন, নওগাঁর একজন ও নাটোরের একজন।
রামেক উপপরিচালক বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেকে ৭৮ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৭ জন। হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৯২ জন এবং সন্দেহভাজন ও উপসর্গ নিয়ে ২৫০ জন ভর্তি রয়েছেন। ডা. সাইফুল ফেরদৌস বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় রামেক হাসপাতালের পিসিআর মেশিনে ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষায় ৪২ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।  অন্যদিকে মেডিকেল কলেজের পিসিআর মেশিনে ৩৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৭ জন করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে।
দুই ল্যাবের টেস্টে মোট ৫৬২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ১৪৯ জনের করোনা পজিটিভ রেজাল্ট আসে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৮৪ শতাংশ।

Leave a comment

Cancel reply