স্টাফ রিপোর্টার॥

বিদেশগামী বা প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলেও এবং ৪০ বছরের কম বয়ষ্করাও টিকা নিতে পারবেন। এ লক্ষ্যে টিকার জন্য সুরক্ষা অ্যাপে শুক্রবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর (বিএমইটি) রেজিস্ট্রেশন।

শুক্রবার থেকে রোজ সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দেশের ৪২টি জনশক্তি অফিস, নয়টি কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র এবং একটি মেরিন টেকনোলজি ইনস্টিটিউটে অথবা ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপে বিএমইটির এই রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চলবে।

জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো সূত্রে জানা গেছে, সরকার প্রবাসী কর্মীদের কর্মস্থলে যেতে নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্ত করতে বিদেশগামী কর্মীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই লক্ষ্যে যাদের বিএমইটির নিবন্ধন নেই তারা এখানে নিবন্ধন করে টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। এর ফলে সুরক্ষা অ্যাপে ঘরে বসেই টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

জানা গেছে, বিদেশগামী কর্মীদের অগ্রাধিকার পাওয়ার লক্ষ্যে যেসব কর্মীদের বিএমইটির ডাটাবেজে নিবন্ধন ও স্মার্ট কার্ড নেই অথবা চলতি বছরের ১ জানুয়ারির আগে বিএমইটির স্মার্ট কার্ড আছে সেসব কর্মীর টিকার জন্য সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধনের সুবিধার্থে বৈধ পাসপোর্ট দিয়ে শুক্রবার থেকে বিএমইটির ডাটাবেজে নিবন্ধন করতে হবে। তবে জানুয়ারি ২০২১ থেকে নিবন্ধিত কর্মীদের নতুনভাবে নিবন্ধনের প্রয়োজন হবে না।

এদিকে বিদেশগামী অভিবাসী ভাই-বোনদের করোনার টিকা নিতে করণীয় সম্পর্কে বিএমইটির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, প্রবাসীদের জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলেও এবং ৪০ বছরের কম বয়ষ্করাও টিকা নিতে পারবেন।

করোনার টিকা রেজিস্ট্রেশনের জন‍্য করণীয়- প্রথমে আপনার মোবাইলে প্লে-স্টোর এর মাধ‍্যমে ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপটি ডাউনলোড করুন। ডাউনলোড করে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন ফরমটি ফিল আপ করে আপনার পাসপোর্টের ২য় পৃষ্ঠার ছবি তুলে আপলোড করবেন। ফরমটি ফিলআপ করার সময় আপনার যে ফোন নম্বরটি দেবেন সেই নম্বরে একটি ভেরিফিকেশন কোড যাবে ফরম ফিল আপ করার সময় এ নম্বরটি ফরমে দিতে হবে।

আবেদন করার ৭২ ঘণ্টা অথবা তার আগেই আপনার পাসপোর্ট যাচাইয়ের (validation) পর আপনার আবেদন সম্পূর্ণ হয়েছে মর্মে মেসেজ পেলে আপনাকে একটি নম্বর দেওয়া হবে সে নম্বরে ৩০০ টাকা বিকাশ বা নগদের মাধ্যমে পাঠাতে হবে। টাকা পাঠানোর পর আপনি বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন নম্বর পাবেন।

বিকল্প: আপনি যদি কোনো কারণে ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপসের মাধ‍্যমে বিএমইটি রেজিস্ট্রেশন করতে না পারেন তাহলে ৩ জুলাই থেকেই আপনার নিজ জেলার জেলা কর্মসংস্থান কার্যালয় /টিটিসিতে গিয়ে ফরম পূরণ করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনার পাসপোর্টের ফটোকপি ও ২০০ টাকা ফি নিয়ে যেতে হবে। তবে করোনা ও লকডাউনের মধ‍্যে অফিসে না গিয়ে নিজের বাড়িতে বসে ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপের মাধ‍্যমে করার চেষ্টা করুন। অফিসে গিয়ে রেজিস্ট্রশন করলেও আপনাকে আবার নিম্নোক্ত প্রক্রিয়ায় সুরক্ষা অ্যাপসে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

দ্বিতীয় ধাপ: ‘আমি প্রবাসী’ অ্যাপে অথবা জেলা কর্মসংস্থান কার্যালয়/টিটিসিতে উপরোক্ত রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার পর আপনি www.surokkha.gov.bd তে রেজিস্ট্রেশন করবেন।  এ ওয়েবসাইটে আগামী ২/৩ দিন পর ‘বিদেশগামী বাংলাদেশি অভিবাসী কর্মী’ নামের যে ফিল্ডটি প্রদর্শিত হবে তাতে ক্লিক করে প্রয়োজনীয় তথ‍্যাদি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করার পর মোবাইলে মেসেজের মাধ‍্যমে টিকা নেওয়ার তারিখ ও স্থান জানতে পারবেন।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরব প্রবাসী যাদের এক ডোজ টিকা দেওয়ার ১৪ দিন বা তার আগেই ফ্লাইট রয়েছে তাদের টিকা নিয়ে কোনো লাভ হবে না, কারণ তাদের কোয়ারেন্টিন করতেই হবে। অর্থাৎ এক ডোজ টিকা দেওয়ার ১৪ দিন পর ফ্লাই করলে আপনার কোয়ারেন্টিন করতে হবে না, তবে সেক্ষেত্রে সৌদির Tawakkalna অ্যাপসে ডাটা এন্ট‍্রি দিতে হবে। যারা সৌদি আরবে এক ডোজ টিকা নিয়েছেন এবং তাওয়াক্কালনা অ্যাপসে তথ‍্য আছে তাদেরও সৌদি আরবে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন করতে হবে না।

ইতোমধ‍্যে দেশে যারা অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার দ্বিতীয় ডোজ বা এক ডোজ টিকা নিয়েছেন তাদেরও কোয়ারেন্টিন করা লাগবে না,  তবে সেক্ষেত্রে যাওয়ার এক সপ্তাহ আগেই তাওয়াক্কালনা অ্যাপসে ডাটা এন্ট্রি করে নিতে হবে।

Leave a comment