দৈনিক ভোলা টাইমস্ঃঃ   দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণহীন বেড়েছে নিত্যপণ্যের দাম দিশেহারা হয়ে পড়েছে ক্রেতারা। চাল ডাল তেল আটা ময়দা  থেকে শুরু করে কাঁচা পণ্য কিনতে হিমশিম খেতে হচ্ছে জণগনের। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি হওয়ার কারণ জানতে চাইলে ভোলার চকবাজার পাইকারি ব্যাবসায়ীরা জানান আমদানি পণ্যের শুল্ক কমানো ছাড়া কোনভাবেই নিত্যপণ্যের দাম কমানো সম্ভব নয়। বেড়েছে কাঁচা পণ্যের দাম পেঁয়াজ প্রতি কেজি ৬০ টাকা করে বিক্রি করা হচ্ছে যা আগে ছিল ৪০ টাকা রশুন প্রতিকেজি ৪৫ টাকা ডাল প্রতি কেজি একশত বিশ টাকা এছাড়াও বেড়েছে সবজির দাম ফুলকপি প্রতিকেজি ১০০ টাকা টমেটো ১৬০ টাকা । বেড়েছে অস্বাভাবিক তেলের দাম প্রতলিটার ১৬০ টাকা চিনি ৮৫ টাকা কেজি মসুর ডাল  একশ দশ টাকা এইভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে নিত্যপণ্যের দাম বাজার গিয়ে খুব সমস্যার মধ্যে পড়তে নিন্ম আয়ের মানুষের।

সরেজমিনে ঘুইংগার হাট বাজারে গিয়ে দেখা যায় দৃব্যমূল্যের বাজারে আগুন ৫০০ টাকায় ভরছে না বাজারের ব্যাগ বাজার করতে আসা ভুক্তভোগীরা জানান অস্বাভাবিক সাধ্যের বাইরে নিত্যপণ্যের দাম।ভোক্তারা বলেছেন খাদ্য মানুষের মৌলিক চাহিদা তাই খাদ্য সামগ্রী মানুষের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে রাখা রাষ্ট্রের নৈতিক দায়িত্ব। বাজার মনিটরিং এর দাবি জানান তারা। আগুনে পোড়া ক্রেতারা বলেন প্রয়োজনে মনিটারিং সেল করার দাবি। বিক্রেতারা জানান বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে হলে সরকার কে মজুতদারদের খুঁজে বের করতে হবে বড় বড় ব্যাবসায়ীরা ব্যাপক পরিমাণে বিশেষ করে পেঁয়াজ মজুত রাখে তাঁরাই মুলত সংকট তৈরি করছে ‌।এই সব মজুতদারদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হোক তাহলে বাজার অনেক স্বাভাবিক হবে বলে আশা করা যায়

Leave a comment

Cancel reply