1. mdmf@gmil.com : আশিষ আচার্য্য : আশিষ আচার্য্য
  2. asrapur121@gmail.com : আশরাফুর রহমান ইমন : আশরাফুর রহমান ইমন
  3. borhanuddin121@gmail.com : বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি : বোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি
  4. admin@bholatimes24.com : Bhola Times | Online Edition : Bhola times Online Edition
  5. ssikderreport@gmail.com : চরফ্যাশন প্রতিনিধি : চরফ্যাশন প্রতিনিধি
  6. dowlatkhan@gmail.com : দৌলতখান প্রতিনিধি : দৌলতখান প্রতিনিধি
  7. easin21@gmail.com : ইয়াছিনুল ঈমন : ইয়াছিনুল ঈমন
  8. gourabdas121@gmail.com : গৌরব দাস : গৌরব দাস
  9. hasanpintu2010@gmail.com : লালমোহন প্রতিনিধি : লালমোহন প্রতিনিধি
  10. iqbalhossainrazu87@gmail.com : ইকবাল হোসেন রাজু : ইকবাল হোসেন রাজু
  11. iftiazhossen5@gmail.com : ইসমাইল হোসেন ইফতিয়াজ : ইসমাইল হোসেন ইফতিয়াজ
  12. mdmasudalom488@gmail.com : Afnan masud : Afnan masud
  13. mnoman@gmail.com : এম,নোমান চৌধুরী : এম,নোমান চৌধুরী
  14. monpura@gmail.com : মনপুরা প্রতিনিধি : মনপুরা প্রতিনিধি
  15. najmu563@gmail.com : নাজমুল মিঠু : নাজমুল মিঠু
  16. najrul125@gmail.com : নাজরুল ইসলাম সৈারভ : নাজরুল ইসলাম সৈারভ
  17. news.bholatimes1@gmail.com : ডেস্ক রিপোর্ট : ডেস্ক রিপোর্ট
  18. news.bholatimes@gmail.com : News Room : News Room
  19. nirob121@gmil.com : ইউসুফ হোসেন নিরব : ইউসুফ হোসেন নিরব
  20. abnoman293@gmail.com : এম নোমান চৌধুরী চরফ্যশন প্রতিনিধি : এম নোমান চৌধুরী চরফ্যশন প্রতিনিধি
  21. nhohechowdhury@gmail.com : OHE CHOWDHURY NAHID : OHE CHOWDHURY NAHID
  22. mdmasudaom488@gmil.com : তজুমদ্দিন প্রতিনিধি : তজুমদ্দিন প্রতিনিধি
  23. sanjoypaulrahul11@gmail.com : sanjoy pal : sanjoy pal
  24. sohel123@gmail.com : সোহেল তাজ : সোহেল তাজ
  25. btimes536@gmail.com : সৌরভ পাল : সৌরভ পাল
  26. bholatimes2010@gmail.com : স্টাফ রিপোর্টার : স্টাফ রিপোর্টার
বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

চরফ‍্যাসন শশীভূষণে মসজিদের জমি জোরপূর্বক দখল করার অভিযোগ উঠেছে স্কুল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে

রির্পোটার
  • সময়: সোমবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০২১

এইচ এম নোমান ,

দৈনিক ভোলা টাইমস্ঃ চরফ্যাসন প্রতিনিধি। ভোলা চরফ্যাসন উপজেলা শশীভূষণ থানাধীন রসুলপুর ইউনিয়ন ২ নং ওয়ার্ড নজর আলী মাঝি বাড়ির দরজার জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা ও জোরপূর্বক জমি দখল করার অভিযোগ উঠেছে,৩১ নং শশীভূষণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষিকা মোসাঃ নাজমা বেগম বিরুদ্ধে। মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি মোঃ ফারুক মাঝি অভিযোগ করে বলেন, ১২৪ নং খতিয়ানের ২১৫/১৬ নং ডিয়ারার ১০৫৭ নং দলিলে ৩১/১/১৯৮৮ ইং সনে মোঃ এছহাক মাঝি ১৬ শতাংশ এবং মোঃ নজল আলী মাঝি ৮ শতাংশ, মোট ২৪ শতাংশ জমি মসজিদের নামে দলিল দিয়ে নিজ বসত ঘর ভেংগে এনে দলিল কৃত জমিতে জুমার মসজিদ চালু করেন। পরবর্তীতে মোঃ ইউনুস মাঝি মসজিদের কবরস্থানের জন্য ৪৩৬ নং খতিয়ানের ২১৫ নং দাগের ২০৬৭ নং দলিলে ১৮/১২/১৯৯৭ সনে ৮ শতাংশ জমি মসজিদের নামে দলিল দিয়েছেন। এবং ৯/৪/২০১৭ সালে ১২৪ নং খতিয়ানের ২১৫ নং দাগের এছহাক আলী মাঝির ছেলে মোঃ ইদ্রিস মাঝি,ইসমাইল মাঝির ছেলে মোঃ ফারুক মাঝি,ও ইউনুস মাঝির ছেলে মোঃ জাকির সহ ৩জন মিলে ৮ শতাংশ জমি মসজিদ কে দলিল দিয়েছেন। মোট ৪০ শতাংশ জমি ২৩৮১ নং নামজারি খতিয়ানে ২৩৭৬ নং হোল্ডিংয়ে ২১৫ নং দাগে ৩২ শতাংশ ও ২১৬ নং দাগে ৮ শতাংশ জমি মসজিদের নামে নাম জারি করা হয়েছে। উল্লেখ্য দীর্ঘ ২০ বছর নাজমা বেগমের বাবা মোঃ ইদ্রিস মাঝি সভাপতি ও মামা মোঃ বাবুল বয়াতি সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করার সুযোগে,নাজমা বেগম ধীরে ধীরে মসজিদের জমি দখল করে বাড়িঘর নির্মাণ করেন,কিছুদিন পূর্বে নতুন কমিটি মসজিদের দায়িত্ব পাওয়ার পরে যখন ইদ্রিস মাঝি কে মসজিদের দলিল ও জমি বুজ দেওয়ার কথা বলেন তখন থেকেই মসজিদের সাবেক সভাপতি মোঃ ইদ্রিস মাঝি নয় ছয় শুরু করেন, দীর্ঘ চার বছর পরে জমির দলিল বুজ দিলে ও মসজিদের জমি বুঝ দিতে পারেননি,এই নিয়ে স্থানীয়ভাবে একাধিকবার সালিশ মীমাংসা করে আমিনের মাধ্যমে মাপ যোগ করে জমি বুজ দেওয়ার কথা থাকলেও জমি মাপের দিন ইদ্রিস মাঝি বাড়িতে থাকে না, এমতাবস্থায় কোন উপায় না পেয়ে মসজিদ পরিচালনা কমিটি ভোলা জেলা পুলিশ সুপার বরাবর জমি বুজ পাওয়ার জন্য একটি লিখিত অভিযোগ করেন,পুলিশ সুপার মহোদয় স্থানীয় শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ কে তদন্ত করে রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন। শশীভূষণ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান পাটোয়ারী বলেন পুলিশ সুপার মহোদয়ের নির্দেশে নাজমা বেগমকে জমির কাগজপত্র নিয়ে একাধিকবার থানায় আসতে বললেও নাজমা বেগম কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি, স্থানীয়ভাবে তদন্ত করে দেখা যায় নাজমা বেগম মসজিদের জমি ও ৩১ নং শশীভূষণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমি ভোগ দখলে আছেন নাজমা বেগম কে মসজিদের জমি ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করে,তদন্ত রিপোর্ট পুলিশ সুপার বরাবর পাঠিয়ে দিয়েছি। এদিকে নাজমা বেগম মসজিদ পরিচালনা কমিটিকে হয়রানি করার জন্য মসজিদের মতোয়াল্লী এবং সভাপতি মোঃ ফারুক মাঝি,পিতাঃ মোঃ ইসমাইল মাঝি ও মোঃ আঃ হান্নান মেম্বার পিতা আঃ মান্নান হাওলাদার সহ সকল মুসল্লিদের বিরুদ্ধে একটি আদালত করেন। এবং চরফ্যাশন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে মোঃ জাহাঙ্গীর আলম মাঝি(৩৫) মোঃ আমজাদ হোসেন মাঝি (৩২)উভয় পিতা মোঃ মফিজুর রহমান মাঝি, মোঃ হেলাল মাঝি (৩৮)পিতা-মৃত ইসমাইল মাঝি, মোঃ মুজিবল হক মাঝি(৫০) পিতা নজর আলী মাঝি, আব্দুর রশিদ মাঝি (৫৪) পিতা আব্দুল জলিল মাঝি, ও আব্দুল মালেক (৫৫) আব্দুল খালেক (৫০) উভয় পিতা মৃত নূর মোহাম্মদ মাঝি সহ আরো অজ্ঞাত ৪/৫ জনের নামে অভিযোগ দাখিল করেন। মসজিদ পরিচালনা কমিটির কোষাধক্ষ্য আলহাজ্ব মোঃ জাহাঙ্গীর আলম মাঝি বলেন সুন্দরভাবে আল্লাহর ঘর মসজিদ পরিচালনা করতে গিয়ে এখন আমরা হয়রানির শিকার হচ্ছি,আমরা এই মিথ্যা মামলা থেকে নিষ্কৃতি ও নাজমা বেগমের দখলকৃত ২৪ শতাংশ মসজিদের জমি ফিরে পেতে উর্ধতম কর্মকর্তা এবং সুশীল সমাজ সহ দেশবাসীর কাছে আমাদের সকল মুসল্লিগণ আকুল আবেদন করছেন। এ বিষয়ে অভিযুক্ত স্কুল শিক্ষিকা নাজমা বেগমের সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করলেও তার বক্তব্যে নেওয়া সম্ভব হয়নি।

শেয়ার করুন:

আরো সংবাদ:
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৪ - ২০২১ © এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
Developer By Zorex Zira