ভোলার গাজির চরে ধানকাটা কেন্দ্র করে নারীকে পিটিয়ে আহত

স্টাফ রিপোর্টার,
দৈনিক ভোলার টাইমস ::  ভোলা সদর উপজেলার পশ্চিম ইলিশা পূর্ব গাজীর চর এলাকায় ধানকাটা কেন্দ্র করে বকুল নামের এক নারীকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে হিরন লার্ড ও শাহে আলমগংদের বিরুদ্ধে।
গতকাল দুপুরে পূর্ব গাজীর চর এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশের একটি টিম গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।
সূত্রে জানা যায়, নুরু উদ্দিন কয়েল এর সাথে শাহে আলম গংদের জমিজমা নিয়ে বিরোধ। ওই বিরোধীয় জমির ধানকাটা নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করে। এসময় দুই পক্ষের বিরুদ্ধে বোমা ফুটানোর অভিযোগ উঠে তবে বোমা নিক্ষেপের ঘটনায় এক পক্ষ অন্য পক্ষ কে দোষারোপ করেন। এ সময় শাহে আলম গ্রুপের হামলায় বকুল নামের এক নারী গুরুত্বর আহত হয় বলে জানা গেছে।
স্থানীয় শাহাবুউদ্দিন সিকদার বলেন, হিরন লার্ডরা ধান আসলেই বেপরোয়া হয়ে উঠে। তারা অস্ত্র নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করে। আজ বোমা মেরে আতঙ্কিত করেছে এলাকা।
নুরু উদ্দিন বলেন, আমাদের জমির ধান জোরপূর্বক কেটে নিতে আসছে, আমরা বাধা দেওয়ায় শাহে আলমরা বোমা নিক্ষেপ করেছে।
অভিযুক্ত শাহে আলম বলেন, সাহাবুউদ্দিন সিকদার আমার কাছ থেকে চাঁদা চেয়েছে তার রেকর্ড আছে। আমি তার বিরুদ্ধে মামলা করেছি। তাই আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিচ্ছে। তা ছাড়া আমাদের জমিতে ধান সেই ধান জোরপূর্বক কাটতে আসায় আমরা ৯৯৯ ফোন করে পুলিশ নিয়েছি। আমরা যদি বোমা নিক্ষেপ করতাম তাহলে কি পুলিশ নিতাম?  তবে হিরণ লার্ড এর বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।
পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক আহসান বলেন, ৯৯৯ ফোন পেয়ে আমি গিয়ে দুই পক্ষ কে সরিয়ে দিয়েছি তবে বোমা নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেনি এটা বানোয়াট।