ভোলার মনপুরা কালবৈশাখী ঝড়ের তান্ডব, বিধ্বস্ত শতাধিক ঘর বাড়ী

ভোলা টাইমস্ ডেস্কঃ

এ ঝড়বৃষ্টিতে ১শ’র বেশি কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত ও গাছপালার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। সকাল থেকে ২নং হাজির হাট ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড দাসের হাট এলাকায় সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, কিভাবে মানুষ খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। এ এলাকার অধিকাংশ ঘরের শুধু ভিটেমাটি টুকু পরে থাকতে দেখা যায়। বসত ঘরের টিনের চাল, বেড়া থেকে শুরু করে আসবাবপত্র সব কিছু ঝড়ে উড়িয়ে নিয়ে যায়। জানা যায়, ঝড়ের সময় দাসের হাট গ্রামের জহির মাঝির তিন বছরের পুত্র সন্তান ঘরের মাঝে চৌকিতে শুয়ে থাকা অবস্থায় ঝড়ে উড়িয়ে নিয়ে যায়। অনেক খোঁজাখুঁজির পর পাশের জমিনে রক্তাক্ত অবস্থায পাওয়া যায়। টিনের সাথে তার হাত, কপাল কেটে যায়। এ ছাড়া মনপুরার বিচ্ছিন্ন চর কলাতলি ও কাজির চরে অনেক ঘর বাড়ী বিধ্বস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। কাজির চরে ঝড়ের তান্ডবে গুচ্ছ গ্রামের টিনের চাল উড়িয়ে নিয়ে গেছে। সকালে ২নং হাজির হাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহারিয়ার চৌধুরী দিপক ও মনপুরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দাস দাসের হাট গ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যান। এবং ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের তালিকা করার জন্য ওয়ার্ড মেম্বারদের নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে ২নং হাজির হাট ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহারিয়ার চৌধুরি দিপক জানান, আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসার সহ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে এসেছি, ক্ষতি গ্রস্তদের তালিকা করে তাদেরকে সহযোগিতা করা হবে।এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিপুল চন্দ্র দাস জানান, সকালে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা ঘুরে এসেছি, তাদের কষ্ট আমি দেখেছি। আমি ডিসি স্যারের সাথে এ ব্যাপারে কথা বলেছি, তিনি জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য চাউল, টিন, নগদ টাকা দিবেন।

Facebook Comments