তজুমদ্দিনে কর্মজীবি নারী’র টাকা ও স্বর্ণালংকার ছিনতাই 

চপল রায় ॥

ভোলার তজুমদ্দিনে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার এক মহিলা স্টাফের কাছ থেকে নগদ অর্থ ও অলংকার ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে । স্থানীয় বাসিন্দা মোঃ সুমন নামের এক বখাটের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে। প্রত্যক্ষদর্শী ও নারীর আত্নীয়ের বরাতে জানা যায়, উক্ত এনজিও কর্মী তার অসুস্থ ভাইকে দেখার উদ্দেশ্যে সন্ধ্যায় সুমনের অটোতে সহযাত্রীদের সাথে ফকিরহাট থেকে খাসেরহাট রওনা হয়। পাঁচশত মিটার পূর্বে অন্য যাত্রীরা নেমে গেলে সুযোগ পেয়ে ধর্ষণের উদ্দেশ্যে হেডলাইট বন্ধ করে নির্জন পরিত্যক্ত ভিটায় নিয়ে যায়।

ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে মহিলার কাছ থেকে নগদ অর্থ, স্বর্ণালঙ্কার ও মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা আটক করে নিয়ে যায়। ঘটনাটি সম্পর্কে জানতে চাইলে মহিলার আত্নীয়রা জানান, শুক্রবার সকালে আমি ও ঘটনার শিকার আমার ভাগ্নি থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দেই। তবে তজুমদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এস এম জিয়াউল হক এ প্রতিবেদককে জানান, আমি লিখিত অভিযোগ পাইনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নিয়ে নেওয়া হবে।

এদিকে নামপ্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা জানান, মোঃ সুমন এলাকার ত্রাস ও ভূমিদস্যু হিসেবে পরিচিত নুরনবীর ছেলে। বহুদিন ধরেই নেশা ও অন্যান্য অপকর্মের সাথে সে ওতোপ্রোতোভাবে জড়িত। তবে এদের খুঁটির জোরের কারণে রহস্যজনকভাবে সমস্ত অপরাধ রয়ে যায় পর্দার অন্তরালে। একের পর এক ঘটতে থাকে ছিনতাই, জবরদখল সহ নানা সমাজবিরোধী ঘটনা। বহুদিন ধরে অতিষ্ঠ এলাকার সাধারণ জনগণ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন’র হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Facebook Comments