স্পোর্টস ডেস্ক॥

পাকিস্তান ন্যাশনাল টি-টোয়েন্টি কাপ চলাকালীন সময়ে বায়ো-বাবল সিস্টেম লঙ্ঘন করে বিতর্কের জন্ম দিয়েছে পাকিস্তানের ৯ ক্রিকেটার। এই ঘটনায় জড়িত ক্রিকেটাররা ও ৩ কর্মকর্তা হোটেলের বাইরে সময় কাটিয়েছিলেন। ক্রিকেটারদের এমন আচরণে হতাশা প্রকাশ করেছে পিসিবি এবং সেই সঙ্গে কঠোর হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তাদের।কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে বায়ো-বাবলে ব্যবস্থা লঙ্ঘন করার অভিযোগ উঠল। তার পরেই অভিযুক্ত ক্রিকেটার ও কর্মকর্তা সতর্ক করা হয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে। বায়ো-বাবল ব্যবস্থার সীমানা ছাড়িয়ে টি-টোয়েন্টি কাপের সঙ্গে যুক্ত ৯ ক্রিকেটার এবং ৩ জন কর্মকর্তা হোটেলের বাইরে সময় কাটাচ্ছিলেন।তারপরেই অভিযুক্তদের ডেকে সতর্ক করার পাশাপাশি কোভিড টেস্ট করা হয়েছে।

রাওয়ালপিন্ডিতে টিম হোটেল ও স্টেডিয়ামে জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করে এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টটি হচ্ছে। পিসিবির হাই পারফরম্যান্স ‍ডিরেক্টর নাদিম খান এই ইস্যুতে প্রেস বিবৃতিতে জানান, ‘গোটা টুর্নামেন্টের স্বাস্থ্য নিরাপত্তাকেই প্রশ্নের মুখে ফেলে দিয়েছিল অভিযুক্তরা। এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। পিসিবি সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটার, তাদের দলের আধিকারিকদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছে। ভবিষ্যতে কোনোভাবেই এমন আচরণ বরদাস্ত করা হবে না। চলতি এবং ভবিষ্যতে যারা নিয়ম লঙ্ঘন করবে তাদের প্রতি পিসিবি জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করবে।’

Leave a comment