সাদির হোসেন রাহিম ॥
ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলার মেঘনা নদীতে মা ইলিশ সংরক্ষণের সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মাছ শিকারের দায়ে কোস্টগার্ডের অভিযানে নৌকা ও জালসহ ১৬ জেলেকে আটক করা হয়। আটককৃতদের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জেল ও জরিমানা প্রদান করেন নির্বাহি ম্যাজিষ্ট্রেট। এর আগে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করার অপরাধে ৩৯ জেলেকে জেল জরিমানার দন্ড প্রদান করা হয়।

উপজেলা মৎস্য অফিস সুত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার ভোর রাতে ২২দিনের মা ইলিশ সংরক্ষণ ও রক্ষার অভিযানের অংশ হিসেবে কোস্টগার্ড সদস্যরা মেঘনার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় মাছ শিকারের দায়ে ৪টি নৌকা, ৪ হাজার মিটার জাল ও ১৬ জেলেকে আটক করেন। পরে আটককৃত দের ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ৭ জনকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এছাড়াও বাকী ৯ জনকে মৎস্য সুরক্ষা ও সংরক্ষণ আইন ১৯৫০ এর ৩ (চ) ধারার অপরাধে ৫ (১) ধারায় ১ বছর করে বিনাশ্রম করাদন্ডের রায় দেন ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহি ম্যাজিস্ট্রেট ইউসুফ হাসান।

দন্ডপ্রাপ্ত জেলেরা হলেন, আব্দুর রহিম (৪০), রিয়াজ (৩৮), আব্দুল হামিদ (৩৫), মিজান (৩৯), ইমরান (২২), আইয়ুব (৩৫), রাশেদ (২৮), ইউনুছ (৩৩) ও সোহাগ (২০)। আটক হওয়া প্রত্যেক জেলের বাড়ি লালমোহন উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে বলে জানা গেছে। আটককৃত নৌকা নিলামে বিক্রি করা হয় ও জাল শশীগঞ্জ স্লুইজঘাট এলাকায় আগুণে পুড়ে ধ্বংস করা হয়। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মু. মাহফুজুর রহমান বলেন, মা ইলিশ সংরক্ষণের অভিযান সফল করতে আমাদের চেষ্টা অব্যাহত আছে। তারপরও কেউ আইন ভাঙ্গার চেষ্টা করলে আইনি প্রক্রিয়ায় যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a comment