নাজমুল মিঠু ॥
বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করে ষড়যন্ত্রকারী ও দেশদ্রোহীরা আওয়ামীলীগকে বিনাশ করতে চেয়েছিল। ওরা জানে না বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করা যায় না। বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ আওয়ামী লীগ এগিয়ে যাচ্ছে।

অতিতের যে কোন সময় থেকে আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত ও শক্তিশালী। ভোলায় গতকাল মঙ্গলবার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জেল হত্যা দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব তোফায়েল আহমেদ এ কথা বলেন। তোফায়েল আহমেদ ঢাকা থেকেই ভিডিওকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন। এ সময় তিনি নেতাকর্মীদের স্মরণ করিয়ে দিয়ে বলেন, ১৯৮১ সালে আওয়ামী লীগের পতাকা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে তুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল ।

ওই পতাকা তুলে দিয়ে ছিলাম বলেই , এই দেশে বঙ্গবন্ধু’র হত্যার বিচার হয়েছে। ঘাতকদের স্বপ্নপূরণ হয় নি। আজ বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে মর্যাদাসীন দেশে পরিনত হয়েছে। তোফায়েল আহমেদ এই সময় জেলহত্যা দবিসের কাহিনী তুলে ধরার পাশপাশি নিহত জাতীয় নেতাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। ওই দিনগুলোতে তোফায়েল আহমেদ’র উপর যে নির্যাতন অত্যাচার চলে ছিল তারও বর্ননা করেন তিনি নিজে।

অনুষ্ঠানে এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগ সম্পাদক আবদুল মমিন টুলু, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোঃ মোশারফ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ডেপুটি কমান্ডার সফিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ম সম্পাদক এনামুল হক আরজু, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল ইসলাম, অধ্যক্ষ সাফিয়া খাতুন, জেলা আওয়ামীলীগ সহ দফতর সম্পাদক মোঃ সামসুদ্দিন আহম্মেদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ আহ্বায়ক মোঃ আবু সায়েম, আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার পাশা বিপ্লব এবং ভোলা জেলা কৃষকলীগের সভাপতি মামুনুর রশীদ সহ অন্যন্যা নেতৃবৃন্দরা

Leave a comment